গৃহবধূকে নগ্ন করে গ্রাম ঘোরানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার আরো নয়

আলিপুরদুয়ার,১৬জুন,প্রসেনজিৎ রাহা: গত বৃহস্পতিবার এক গৃহবধূকে নগ্ন শরীরে সারা গ্রাম ঘুরিয়ে ছিল স্থানীয় মোড়লরা। পরকীয়ার অভিযোগে সালিশী সভায় ডেকে, নেওয়া হয়েছিল এই সিদ্ধান্ত। স্বামী মেনে নিলেও ছয় মাস বাদে বাড়ি ফিরে আসা ওই গৃহবধূকে এমনই শাস্তির নিদান দিয়েছিলেন স্থানীয় মোড়লরা। কেবলমাত্র মারধর বা জামা কাপড় ছিড়ে দেওয়া নয়, নগ্ন করে ঘোরানো হয়েছিল গ্রামে ।

রবিবার রাতে সেই খবর সোশ্যাল মিডিয়াতে চাউর হওয়ার সাথে সাথেই টনক নড়েছিল আলিপুরদুয়ার জেলা প্রশাসনের । মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ওই মহিলাকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পাঠিয়ে চিকিৎসা ব্যবস্থার পাশাপাশি, সেদিন রাতেই তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ এবং ইতিমধ্যে তাদের জেল কাস্টডির নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

সোমবার আলিপুরদুয়ারের পুলিশ সুপার ভোলানাথ পান্ডে প্রেস কনফারেন্স করে জানিয়েছিলেন , যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দোষীদের গ্রেফতার করা হবে। তিনি কথা দিয়েছিলেন অপরাধীরা গ্রেপ্তার হবে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে । পুলিশ সুপারের নির্দেশ মতো অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করতে আলিপুরদুয়ার জেলা পুলিশ চারটি স্পেশালি টিম বানায় । অবশেষে জেলা পুলিশ আধিকারিক এর কথা বাস্তবায়িত হলো।

মঙ্গলবার ওই গৃহবধূর ওপর নির্মম অত্যাচারের ঘটনার অভিযোগে ৯ জনকে গ্রেফতার করল আলিপুরদুয়ার জেলা পুলিশ আধিকারিকরা । অভিযুক্তদের উপযুক্ত শাস্তি দাবি করেছেন জেলাবাসী। ইতিমধ্যেই ঘটনাটি নিয়ে পুলিশ সুপারের কাছে বিস্তারিত তথ্য চেয়ে পাঠিয়েছেন ডাইরেক্টর জেনারেল অব পুলিশ। নির্মম এই ঘটনা নিয়ে হতবাক বাংলার শিক্ষিত সমাজ।